অনেক সময় পেটে গ্যাস হয়ে পেট ফুলে যায় যা খুবই অস্বস্তিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করে। এই সমস্যাটা কেন হয় জানেন? সাধারণত অনিয়মিত খাবার গ্রহণ পদ্ধতি এবং বাইরের উল্টা পাল্টা খাবার বেশি বেশি খেলে এই ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে। এই অনুচ্ছেদে পেট ফাঁপার কারণ, লক্ষণ এবং ঘরোয়া প্রতিকার বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। সেই সাথে অনুচ্ছেদের শেষের দিকটা থেকে পেটে গ্যাস সমস্যা সমাধানের একটি বিশেষ রেসিপি জানতে পারবেন।

পেট ফাঁপা কি? পেট ফাঁপার কারণ কি? 

অনিয়মিত জীবন যাপন পদ্ধতি ছাড়াও পেট ফাঁপার আরো অনেক গুলো কারণ থাকতে পারে। যেমনঃ

  • খাবার ও পানীয় খুব দ্রুত খাওয়া
  • চুয়িংগাম (chewing gum) খাওয়া
  • কোমল পানীয় পান করা
  • ধুমপানের (Smoking) অভ্যাস
  • পাকস্থলীর রোগ (GERD- Gastroesophageal reflux disease)
  • আইবিএস (IBS- irritable bowel syndrome) ইত্যাদি

বর্তমানে ল্যাকটোজ ইনটলারেন্স (Lactose Intolerance) নামক একটি বিশেষ রোগ অনেকের ক্ষেত্রেই দেখা যায় যেখানে দুধ খেলে পেটে গ্যাসের সমস্যা হয়। কারণ, এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির দেহে দুধে উপস্থিত ল্যাকটোজ (Lactose) হজমের জন্য প্রয়োজনীয় এনজাইম থাকে না, ফলে পেটে অস্বস্তি হতে থাকে এবং পেট ফুলতে থাকে।

এছাড়াও কিছু কিছু সবজি রয়েছে যা অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়ার ফলে পেটে গ্যাসের সমস্যা হতে পারে বলে মনে করেন চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা। যেমনঃ বাঁধাকপি, ফুলকপি, ব্রকলি, কেল (Kale), মটরশুটি, পেঁয়াজ, পনির, দই, আইসক্রিম, উচ্চ ফাইবারযুক্ত খাবার, চিনির বিকল্প যেমন- সরবিটল, ম্যানিটল, জাইলিটল ইত্যাদি। (Johnson, 2020)

পেট ফাঁপার লক্ষণ 

পেট ফাঁপার লক্ষণ হিসেবে সাধারণত যে বিষয়গুলো পরিলক্ষিত হয়ে থাকে তা হলো

  • ঢেঁকুর তোলা
  • পেটে ব্যথা বা অস্বস্তি বোধ
  • বদহজম (Indigestion)
  • কোষ্ঠকাঠিন্য অথবা ডায়রিয়া

পেট ফাঁপার লক্ষণ দেখা দিলে সাধারণত এর জন্য চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। কারণ, তা কিছু সময় পরেই আপনা আপনি ঠিক হয়ে যায়। অথবা কতিপয় ঘরোয়া পদ্ধতি অবলম্বনের মাধ্যমে সুন্দর সমাধান পাওয়া যায়। তবে যদি বেশ কিছু দিন ধরে পেট ফাঁপা সমস্যা হতে থাকে এবং সেই সাথে শরীরের ওজন কমে যাওয়া বা অন্য কোনো শারীরিক উপসর্গ দেখা দেয় সেক্ষেত্রে একজন চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করা উচিত।

পেট ফাঁপার ঘরোয়া প্রতিকার

পেটে গ্যাস সমস্যার মৃদু বা মাঝারি পর্যায়ে চিকিৎসকের কাছে না গিয়ে বরং ঘরোয়া প্রতিকারের মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা করতে পারেন। পেটের গ্যাস দূর করার কতিপয় ঘরোয়া টিপস নিচে তুলে ধরা হলো।

Symptoms of flatulence

খাবার আস্তে আস্তে চাবিয়ে খান

অনেকেই আছেন যারা খুব দ্রুত খাবার খেয়ে শেষ করে ফেলেন। আবার তারা আস্তে আস্তে বা একটু সময় নিয়ে যারা খাবার খায় তাদেরকে কটাক্ষ করেও মাঝেমাঝে কথা বলে। কিন্তু মজার ব্যাপার হলো, যারা সময় নিয়ে আস্তে আস্তে খায় তাঁরা কিন্তু স্বাস্থ্যের জন্য সঠিক কাজটি করতেছেন। কারণ, খুব দ্রুত খাবার খেলে প্রতিটা কামড়েই পেটের ভেতরে খুব বেশি বাতাস চলে যায় এবং তা পেটে আটকে যায়। আর এই বাতাস পেট থেকে বের হওয়ার জন্য ভেতরে লড়াই শুরু করে। একই ব্যাপার ঘটে স্ট্র দিয়ে কোল্ড ড্রিংক, জুস বা অন্য কিছু পান করলে। আর তাই খাবার খুব দ্রুত শেষ না করে বরং ধীরে ধীরে চিবিয়ে খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

আঁশযুক্ত খাবার অতিরিক্ত না খাওয়া 

আপনার যদি কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা না থাকে, তাহলে খুব বেশি ফাইবার জাতীয় খাবার খেলে পেটে গ্যাসের সমস্যা বেশি হতে পারে। যদি আপনার হজমের কোনো সমস্যা না থাকে, তাহলে খুব বেশি ফাইবার সমৃদ্ধ খাবারগুলো এড়িয়ে চলাই ভাল। তবে অবশ্যই একেবারে বাদ দিবেন না। বরং পরিমিত মাত্রায় খেতে পারেন।

সবজি রান্না করে খান

কিছু কিছু সবজি রয়েছে যা রান্না করে খাওয়ার চেয়ে সরাসরি কাঁচা অবস্থায় খাওয়া হলে তা শরীরের জন্য বেশি উপকারিতা বয়ে আনতে পারে। তবে আপনার যদি গ্যাসের সমস্যা থাকে, তাহলে কাঁচা খাওয়ার চেয়ে রান্না করা শাকসবজি খাওয়া আপনার জন্য সুবিধাজনক হবে। কারণ, কাঁচা খাবার হজম হতে বেশি সময় নেয়, ফলে পেটে গ্যাস তৈরি হতে পারে।

যে পানীয়গুলো আপনার গ্যাসের সমস্যা করে সেগুলো এড়িয়ে চলুন

অনেকেরই ঘনঘন চা, কফি না খেলে চলেই না। কিন্তু জেনে রাখা ভালো যে, চা কফি কিন্তু গ্যাসের পরিমাণ অনেক বাড়িয়ে দেয়। এছাড়াও, অ্যাসিডিক বা কার্বনেটেড জাতীয় পানীয়, বিভিন্ন ধরনের জুস এবং অ্যালকোহলযুক্ত পানীয় পানে অতিরিক্ত গ্যাসের তৈরি হতে পারে। অনেকেই আবার পেট ফাঁপা কমানোর জন্য সোডা জাতীয় পানীয় সেবন করে। এতে কোন লাভ হয় না বরং উল্টো ক্ষতি হয়, কেননা সোডাতে কৃত্রিম চিনি থাকে যা পেটে গ্যাস তৈরি করে।

চর্বিযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলুন

তেলে ভাজা ও চর্বিযুক্ত খাবার হজম হতে সবচেয়ে বেশি সময় নেয়। ফলে পেট ভারী অনুভূত হয় এবং অস্বস্তি লাগতে থাকে। তবে এমন অনেক খাবারও রয়েছে যাতে প্রাকৃতিক ভাবে শরীরের জন্য উপকারী ফ্যাট থাকে কিন্তু তা গ্যাসের সমস্যা সৃষ্টি করে না। যেমন- এভোকেডো ফল। আর তাই গ্যাসের সমস্যা থেকে বাঁচতে তেল চর্বি যুক্ত খাবার বেশি বেশি না খেয়ে বরং ফল ও শাকসবজি খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

আপেল সিডার ভিনেগার

আপেল সিডার ভিনেগার পেটের জন্য অত্যন্ত উপকারী একটি উপাদান যা গ্যাসের সমস্যা সমাধান করা সহ পেটের নানাবিধ সমস্যার প্রাকৃতিক সমাধান দিতে সক্ষম। নিয়মিত খাবার গ্রহণের পূর্বে ১ টেবিল চামচ পরিমাণ ভিনেগার নিয়ে তা ১ গ্লাস পানিতে মিশিয়ে খাওয়ার মাধ্যমে পেট ফাঁপা সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

লবঙ্গ (Cloves)

লবঙ্গ সাধারণত খাবার তৈরিতে মশলা হিসেবে ব্যবহার করা হয়। খাবার তৈরিতে লবঙ্গ ব্যবহার করা হলে তা স্বাদ ও সুঘ্রাণ বৃদ্ধি করার পাশাপাশি পেটে গ্যাসের সমস্যা দূর করতে প্রাকৃতিক ঔষধ হিসেবে কাজ করে। এছাড়াও, লবঙ্গ থেকে তৈরি তেল (Clove oil) ৫ ফোঁটা পরিমাণ নিয়ে এক গ্লাস পানিতে মিশিয়ে প্রতিবেলা খাবার গ্রহনের পর সেবনের মাধ্যমে পেট গ্যাস জমা সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

কোনো খাবারে এ্যালার্জী থাকলে তা এড়িয়ে চলুন 

আপনার খেয়াল রাখতে হবে যে, কোনো খাবারের প্রতি আপনার অ্যালার্জি বা অসহিষ্ণুতা জনিত কারণে পেটে গ্যাস হচ্ছে কিনা? যেমনঃ ল্যাকটোজ ইনটলারেন্স রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে প্রায়ই এই সমস্যা হয়ে থাকে। আর তাই এমন ব্যক্তিদের জন্য দুধ ও দুধের তৈরি খাবার গুলো এড়িয়ে চলাই উত্তম। উল্লেখ্য, বাজারে ল্যাকটোজ ফ্রি দুধ কিনতে পাওয়া যায় যা পেটে সমস্যার সৃষ্টি করে না। ল্যাকটোজ ইনটলারেন্স রোগীদের জন্য এই দুধ নির্বিঘ্নে খাওয়া যেতে পারে।

পেটের গ্যাস সারানোর ঘরোয়া ওষুধ 

পেটের গ্যাস সারানোর ঘরোয়া ওষুধ

কোনো কারণে আপনার পেটে গ্যাস হয়ে গেলে এরকম পরিস্থিতি থেকে বাঁচার জন্য ঘরোয়া পদ্ধতিতে তৈরি করতে পারবেন এমন চমৎকার একটি রেসিপি নিচে দেওয়া হলোঃ

যা যা লাগছেঃ 

  • পেঁপে ১৫০ গ্রাম
  • অ্যালোভেরা জেল ১ টেবিল চামচ
  • শুকনো মৌরি বীজ (fennel seed) ১ টেবিল চামচ
  • পানি ১ কাপ

যেভাবে প্রস্তুত করবেনঃ

মৌরি বীজ জিরার মত কিছুটা শক্ত হয়ে থাকে। আর তাই প্রথমে ২০ মিনিট এটিকে ১ কাপ পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। ২০ মিনিট পর মৌরি বীজ পানিসহ পেঁপে ও অ্যালোভেরা জেলের সাথে নিয়ে একসাথে ব্লেন্ড করুন। ব্যাস! তৈরি হয়ে গেল রেসিপি টি। বিশেষ এই রেসিপি টি সাথে সাথেই পান করে নিন। দেখবেন, পান করার কিছুক্ষণের মধ্যেই গ্যাস কমে গিয়ে বেশ খানিকটা আরাম বোধ করবেন।

 

References

Johnson, J. (2020, September 14). What to know about gas in the stomach. Retrieved from Medical News Today: https://www.medicalnewstoday.com/articles/gas-in-stomach

Last Updated on October 19, 2022

Was this article helpful?
YesNo